প্রতি ঘণ্টায় আসছে করোনায় আক্রান্ত আর উপসর্গের রোগী। জরুরি বিভাগের যেন দম ফেলারও জো নেই। এমন রোগীর চাপে হিমশিম অবস্থা চিকিৎসক, নার্সসহ হাসপাতালের কর্মীদের। শয্যায় জায়গা না পেয়ে ঠাঁই হচ্ছে মেঝেতে। চিকিৎসা পেতে কী আকুতি রোগী আর স্বজনদের।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটের এ চিত্র গতকাল শনিবারের। ইউনিটের রেড জোনে দুপুরে রোগী ছিল ১৬৮ জন। ইয়েলো (উপসর্গ) জোনে রোগী ছিল ৭৮ জন, আর নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ১০টি শয্যা তো খালি থাকছে না কয়েক দিন ধরেই। করোনার শুরুতে এখানে প্রথমে কোভিড শয্যা ছিল ১০০টি, এরপর বাড়িয়ে ২০০টি করা হয়। এখন ৩০০ রোগী রাখার জন্য শয্যা, অক্সিজেনসহ অন্যান্য সুবিধা বাড়ানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এভাবে চট্টগ্রামের প্রতিটি হাসপাতালে করোনা রোগী বাড়ছে। সরকারি হাসপাতালে কিছু শয্যা ফাঁকা আছে দাবি করা হলেও বেসরকারি হাসপাতালে তা–ও নেই। এই অবস্থায় সরকারি-বেসরকারি উভয় ক্ষেত্রে শয্যা বাড়ানোর তৎপরতা শুরু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *